গৌরনদীতে ছাত্রদল নেতাকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার, গৌরনদী।

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার সাবেক ছাত্রদল নেতা নাসরুল খলিফা (৩৫) কে কুপিয়ে গুরত্বর জখম করেছে সরকারি দলের ক্যাডাররা। তার অবস্থা আশংক্ষাজনক। বৃহস্পতিবার রাত সারে ১০টায় উপজেলার কালনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে ১০/১২ জনের একটি দল ধারালো অস্ত্র নিয়ে নাসরুলের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তার মৃত্যু হয়েছে ভেবে ফেলে রেখে যায়। আহত নাসরুল বিএনপি নেতা সামীম খলিফার ছোট ভাই।

স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে আহত অবস্থায় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে বরিশাল সেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত নাসরুল খলিফা নলচিড়া ইউনয়ন ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক। সে একাধীক মামলায় জেলহাজতে ছিলেন। সাম্প্রতি জেল থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে বাড়িতে এসে মাছের ঘের করে ব্যবসা শুরু করেছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে মাছের ঘের দেখে বাড়ি ফেরার সময় এ হামলার সিকার হন।

গৌরনদী উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব জহির সাজ্জাত হান্নান শরীফ জানান, ছাত্রলীগের ক্যাডাররা নাসরুলকে নির্মমভাবে কুপিয়েছে। ঘটনাটি বর্বোরোচিত। সে কথা বলতে পারছেনা। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই জানাই। আমি হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলাম নাসরুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক তাকে দ্রæত ঢাকা নেয়ার প্রস্ততি চলছে।

গৌরনদী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক লুতফর রহমান দীপ বলেন, ঘটনাটি সম্পুর্ন তাদের দুই পরিবারের, পারিবারিক সত্রæতার বহিপ্রকাশ। এ ঘটনার সাথে ছাত্রলীগের কোন প্রকার সম্পৃক্ততা নেই।

গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আফজাল হোসেন জানান, দৃবৃত্তের হামলার সিকার আহত একজনকে পুলিশ উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এ বিষয়ে থানায় কেহ অবিযোগ করেননি। তবে ঘটনাটি নিয়ে পুলিশের অনুসন্ধান অব্যাহত আছে।