স্বরূপকাঠিতে স্কুলের বারান্দায় শিক্ষার্থীদের পাঠদান

0
(0)

হযরত আলী হিরু,পিরোজপুর প্রতিনিধি ॥
পিরোজপুরের স্বরূপকাঠির শামসুননাহার হালিম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বারান্দায় বসে শিক্ষার্থীদের পাঠদান কর্মসূচি হচ্ছে। ঝড়ে বিদ্যালয়টির চালা উড়ে যাওয়া ও অবকাঠামোগত সমস্যায় ওই দূর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিনে ওই বিদ্যালয়টি ঘুরে জানা যায়, উপজেলার সোহাগদল ইউনিয়নের মরহুম আলহাজ্ব আব্দুল হালিম ২০০০ সালে বরছাকাঠিতে নিজস্ব অর্থায়নে ওই বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন। বিদ্যালয়টি অত্র এলাকার ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ায় গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখার পাশাপাশি ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছে। গত ৫ বছরে বিদ্যালয়টি থেকে জেএসসি ও এসএসসি পরিক্ষায় ১৬ টি জিপিএ-৫ সহ শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থীদের জন্য নেই কোন পাঁকা ঘর একটি মাত্র কাঁচা ঘর তারও আবার চালা কিছুদিন পূর্বে ঝড়ে উড়ে গেছে এবং ঘরটির বিভিন্ন স্থান ভেঙ্গে যাওয়ায় এক বারান্দায় বিভিন্ন শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের পাঠদান দেয়া হচ্ছে। ভাংগাচোড়া বেড়ার কারনে মূল্যবান কাগজপত্র থাকে অরক্ষিত। টিউবঅয়েল না থাকায় আধা কিলোমিটার দুরের এক বাড়ি থেকে পানি আনতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। খেলার মাঠে হাটু সমান পানি থাকায় খেলার অনুপোযোগী। বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক মো. মাহফুজুর রহমান ফাগুন জানান, প্রতিষ্ঠার পর প্রথমে সিড়রে স্কুল ঘরটি বিধ্বস্ত হলে তারা শিক্ষকরা ও প্রতিষ্ঠা পরিবারের সদস্যরা মিলে কোন রকমে বিদ্যালয়টি সংস্কার করেছিলেন। সরকারি সাহায্য বলতে ২ বছর পূর্বে উপজেলা পরিষদ থেকে এক লক্ষ টাকা বরাদ্দ পেয়ে ফ্লোর পাকা করা হয়েছে এবং এ বছর এক লক্ষ টাকা পেয়ে শৌচাঘার নির্মান করা হয়েছে। বিদ্যালয়টিতে শিক্ষক সংকট রয়েছে, ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত এমপিওভুক্ত এবং ৯ম ও ১০ শ্রেনী পর্যন্ত সীর্কৃতিভূক্ত। অত্র এলাকার শিক্ষার্থীদের সঠিকভাবে শিক্ষাদানের স্বার্থে বিদ্যালয়টির অবকাঠামোগত সহ বিভিন্ন সমস্য সমাধানে সরকারের সাহায্য কামনা করেন তিনি।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.