0
(0)

এস এম মেহেদী হাসান,স্টাফ রিপোর্টার//
পুরুষদের তুলনায় নারীরা বেশি অলস বলে দাবি করা হয়েছে।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) জরিপে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। ২০০১ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত বিশ্বের ১৬৮ দেশের ১৯ লাখ মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করে সংস্থাটি।ডব্লিউএইচও’র ওই প্রতিবেদন সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়েছে ল্যানসেট গ্লোবাল হেলথ জার্নালে।যারা সপ্তাহে দুইবার অন্তত ৭৫ মিনিটের জন্য ভারী ব্যায়াম, ১৫০ মিনিটের মাঝারি মাত্রার ব্যায়াম বা দুটোর মিশ্রণে ব্যায়াম করেন তাদের শরীর চর্চায় সক্রিয় বলে ধরা হয়েছে।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওই জরিপে ২০০৩ সালে ৫ হাজার ৪০২ জন এবং ২০০৯ সালে ৯ হাজার ২৭৫ জন বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করে। জরিপে অংশগ্রহণকারী এসব মানুষ ১৮ থেকে ৯৯ বছর বয়সী বাংলাদেশি নারী-পুরুষ বলে জানানো হয়েছে।জরিপের বলা হয়েছে, বাংলাদেশি ২৭ দশমিক ৮ শতাংশ মানুষ অলস। এরমধ্যে ১৬ দশমিক ১ শতাংশ পুরুষ এবং ৩৯ দশমিক ৫ শতাংশ নারী ‘অলস’ বা শরীর।এই বিবেচনায় সবচেয়ে অলস দেশের তালিকায় রয়েছে কুয়েত এবং সবচেয়ে সক্রিয় দেশের তালিকায় রয়েছে উগান্ডা। কুয়েতের শতকরা ৬৭ ভাগ মানুষ শরীর চর্চায় অনাগ্রহী এবং উগান্ডার ৫ দশমিক ৫ শতাংশ মানুষ।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.