ইন্দুরকানীতে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত সর্দার বুড়ো জাকির নিহত

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধি ॥
পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে বন্দুক যুদ্ধে জাকির হোসেন ওরফে বুড়ো জাকির নামের এক ডাকাত সর্দার নিহত হয়েছে। শনিবার রাত ২ টা ১৫ মিনিটের সমায় ইন্দুকানী উপজেলার পত্তাশী গ্রামর বটতলা মোড় নামক স্থানে পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে পিরোজপুর জেলার কাউখালি উপজেলার জোলাগাতি গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে আন্ত জেলা ডাকাত দলের সর্দার জাকির হোসেন ওরফে বুড়ো জাকির নিহত হন। এসময় দুই পুলিশ সদস্যও আহত হন। ইন্দুরকানী থানার ওসি নাসির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। থানা সূত্রে জানাযায়, ডাকাত সরদার জাকিরের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অস্ত্র উদ্ধারের জন্য শনিবার মধ্য রাতে পত্তাশী গ্রামের বটতলা মোড়ে গেলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা জাকিরের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি করেন। এসময় পুলিশও আত্ম রক্ষার জন্য পাল্টা গুলি চালায়, গোলাগুলির একপর্যায় জাকির পালাবার চেষ্টা করলে গুলি বিদ্ধ হন তিনি। এসময় দুই পুলিশ সদস্যও আহত হন। ঘটনা স্থল থেকে একটি পাইপ গান, একটি চাইনিজ কুড়াল, তিন রাউন্ড রাইফেলের গুলি, বার রাউন্ড বন্দুকের গুলি, একটি বেকি দা উদ্ধার করেন। পরে পুলিশ জাকিরকে উদ্ধার করে ইন্দুরকানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত ডাক্তার এস.এ খান মৃত ঘোষনা করেন। আহত দুই পুলিশ সদস্য এস.আই সাহাদাৎ ও কনেস্টবল নাসিরকে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ইন্দুরকানী থানার ওসি নাছির উদ্দিন জানান, ডাকাত সর্দার জাকিরের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় একটি ডাকাতি মামলা সহ দেশের বিভিন্ন থানায় ১১ টি মামলা রয়েছে, এর মধ্যে কাউখালী থানায় ৪টি মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জাড়ি আছে। ওসি আরো জানান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পিরোজপুর ডিবি পুলিশের সহায়তায় ইন্দুরকানী থানার এস,আই আঃ আজিজ সহ একদল পুলিশ শুক্রবার রাতে ডাকাত সর্দার জাকিরকে খুলান শহরের জিরো পয়েন্ট থেকে গ্রেফতার করে ইন্দুরকানী থানায় নিয়ে আসেন।