আগৈলঝাড়ায় জমে উঠেছে কোরবানীর পশুর হাট

আগৈলঝাড়া প্রতিনিধিঃ
বরিশালের আগৈলঝাড়ায় কোরবানীর পশুর হাট জমে উঠেছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানের পশুর হাটে অন্য বছরের চেয়ে এবছর দেশী গরুর দাম বেশী। ক্রেতাদের মাঝে বিদেশী গরুর চেয়ে দেশী গরুর চাহিদা বেশী রয়েছে। এসব হাটে উপজেলার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নজরদারী ও জাল টাকা সনাক্তকরনের মেশিন বসানো হয়েছে। সরকারীভাবে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে বড় বাশাইল বালুর মাঠ, গৈলা মডেল ইউনিয়ন মাঠ ও ছয়গ্রাম হাটে গরু হাটের প্রসাশনের অনুমতি রয়েছে। এ ছাড়াও উপজেলার বিভিন্নস্থানে অস্থায়ীভাবে গরু বিক্রি হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে ভারত থেকে গরু আসলেও আগৈলঝাড়ার গরু হাটে ভারতীয় কোন গরু উঠেনি। ভারতীয় গরু না আসায় গত বছরের চেয়ে এ বছর দেশীয় গরু দাম ্েবশী। যে গরুর দাম গতবছর ছিল ২০ হাজার টাকা এ বছর সেই গরুর দাম ২৫-৩০ হাজার টাকা। গরু দাম বেশী হওয়ায় কোরবানীর গরু কিনতে ক্রেতারা হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে অনেক ক্রেতা জানান। ঈদুল আযহার ২দিন বাকী থাকায় অনেক ক্রেতা গরু না কিনে বাড়ি চলে যাচ্ছে। শেষ সময়ে গরুর দাম কমার আশায় ক্রেতারা অপেক্ষা করছে। গরু বিক্রেতা মো.বাবুল জানান, ভারত থেকে গরু না আসায় আমরা খুশি হয়েছি। ভারত থেকে গরু আসলে দেশী গরুর দাম কমে যায়। এই হাটগুলোতে গরু প্রতি একহাজার থেকে দেড় হাজার টাকা খাজনা নেয়া হয়। এসব হাটে উপজেলার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নজরদারী ও জাল টাকা সনাক্তকরনের মেশিন বসানো হয়েছে।