একই পরিবারের ১১ জনের লাশ ভারতে উদ্ধার

দেবাশীষ সাহা দেবা, ক্রাইম রিপোর্টারঃ
ভারতের রাজধানী দিল্লির একটি বাড়িতে একই পরিবারের ১১ জন সদস্যের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার সকালে দিল্লির বুরাতিতে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতদের মধ্যে একজন বয়স্ক নারী, তার দুই ছেলে, দুই ছেলের স্ত্রী ও পাঁচ সন্তান এবং বয়স্ক ওই নারীর মেয়ে। বয়ঃবৃদ্ধ নারীর তৃতীয় ছেলে ছত্তিশগড়ের একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার।
স্থানীয়রা জানান, শনিবার রাত পৌনে বারটার দিকে মুদি দোকানটি বন্ধ করা হয়। রোববার সকালে এক প্রতিবেশি দুধ কিনতে গেলে দোকানটি বন্ধ দেখতে পান। তবে দোকানের মালিকের বাড়ির গেট খোলা থাকায় তিনি বাড়িতে দোকানের মালিককে ডাকতে যান। এ সময় তিনি ওই পরিবারের ১১ জনকে ভেন্টিলেশনের তার দিয়ে ঝুঁলে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন।
ইন্ডিয়া ট্যুডের প্রতিবেদনে বলা হয়, মৃতদের সবার চোখ বাঁধা ছিল এবং ঝুলন্ত ছিলেন। মৃতদের কয়েকজনের হাতও বাঁধা ছিল। পরিবারটির গুরুদুয়ারার কাছে একটি মুদির দোকান আছে এবং তারা ফার্নিচারের ব্যবসা চালাত। এক প্রতিবেশি তাদের এ অবস্থায় দেখে পুলিশকে খবর দিলে বিষয়টি জানাজানি হয়।
এ ঘটনায় পুলিশ ওই জায়গার সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেছেন। পরিবার সদস্যদের সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে মৃতদের আত্মীয়দের খবর দেয়া হচ্ছে। ঘটনাটি গণআত্মহত্যা নাকি খুন করে ঝুঁলিয়ে রাখা হয়েছে, পুলিশ সে বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।