কমলগঞ্জে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের দুর্গত এলাকা পরিদর্শণ

0
(0)

জয়নাল আবেদীন,কমলগঞ্জ প্রতিনিধি//
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও কুলাউড়ায় দূর্গত এলাকা পরিদর্শণ করেন ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: ফয়জুর রহমান। সরেজমিন দূর্গত এলাকা ও আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করে সাড়ে ৪ হাজার দূর্গত মানুষের মাঝে ২০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন। মঙ্গলবার (১৯ জুন) সকাল ১১টা থেকে অতিরিক্ত সচিবকে নিয়ে কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মোহাম্মদ গোলাম রাব্বী উপজেলার সীমান্তের শরিফপুর ইউনিয়ন ও কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক নি¤œাঞ্চল পতনউষার ইউনিয়ন পরিদর্শণ করে আহমদনগর দাখিল মাদ্রাসা আশ্রয় কেন্দ্রে আগত ৭’শ মানুষের মাঝে ২০ কেজি করে চাল বিতরণ কর্মসুচী উদ্বোধন করছেন।
শরীফপুর ইউনিয়নের ২৩শ’ মানুষের মধ্যে প্রথম ধাপে ১০ কেজি করে দ্বিতীয় ধাপে আরও ১০কেজি চাল বিতরন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মোহাম্মদ গোলাম রাব্বী, উপজেলা চেয়ারম্যান আ.স.ম কামরুল ইসলাম, চেয়ারম্যান জনাব আলী, মুক্তিযোদ্দা আয়ুব আলীসহ ইউপি সদস্যগন উপস্তিত ছিলেন। পতনঊষার ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরন কালে উপস্থিত ছিলেন, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক, কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মোক্তাদির হোসেন পিপিএম, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমদ বাবুর প্রমুখ।
রহিমপুর ইউনিয়নে আগত বানবাসী ৪৫০ মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। বেলা দেড়টায় কমলগঞ্জ পৌরসভায় বানবাসী ৫শ মানুষের মাঝে ২০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমেদ এর সভাপতিত্বে এ সময় উপজেলা বিআরডিবির চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমদ (বুলবুল) উপস্থিত ছিলেন।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, উপজেলার বিভিন্ন বিভাগীয় কর্মকর্তার উপস্থিতিতে এক সাথে ১টি পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নে মোট সাড়ে ৪ হাজার দূর্গত মানুষের মাঝে ২০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। বুধবার আবারও আরও প্রায় ৬ হাজার মানুষের মাঝে ত্রানের চাল বিতরণ করা হবে। ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: ফয়জুর রহমান এ প্রতিনিধিকে বলেন, মৌলভীবাজার জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলায় সাম্প্রতিক বন্যাক্রান্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে বিশেষ বরাদ্ধ দিয়ে এসব ত্রাণ বিতরণ করছেন।
তার অংশ হিসাবে তিনি একজন যুগ্ম সচিবকে সাথে নিয়ে বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে নিজের উপস্থিতিতে ত্রাণের চাল বিতরণ করেন। বিধ্বস্ত বাড়ি ঘর, ভেঙ্গে যাওয়া সড়ক মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, মানুষজন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে না যাওয়া পর্যন্ত ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত থাকবে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.