স্বরূপকাঠিতে বশতঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় মাদকসেবী কালু গ্রেফতার

0
(0)

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধি ॥
সবুজ বাংলায় সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের উড়িবুনিয়া গ্রামে বশতঘরে হামলা ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের চেষ্টা করার অভিযোগে ওই গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের মাদকাসক্ত ছেলে মো. কালাম ওরফে কালুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে কালুকে পিরোজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার বাদী ওই এলাকার মো. চাঁন মিয়ার ছেলে মো. লিটন বাহাদুর জানান, কালু গত কয়েক বছর ধরে মাদক সেবন করে আসছে পাশাপাশি এলাকার উঠতি কিশোর ও যুবকদেরকে মাদক সেবনে আসক্ত করে তাদের কাছে মাদকদ্রব্য বিক্রি করে। মাদকের টাকার জন্য বিভিন্ন সময় এলাকার বিভিন্ন ঘর থেকে জিনিশপত্র চুরি করে নিয়ে যায়। কিছুদিন পূর্বে তার ভাই রিপনের মোটর সাইকেলটিও কালু চুরি করে নিয়ে যায়। পরে পুলিশের সহায়তায় সেটি উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়াও কালু নেশাগ্রস্থ হয়ে নারীদেরকে উত্যক্ত করার অভিযোগও করেন তিনি। যারা কালুকে এসব কাজে নিশেধ ও বাধা প্রদান করে কালু তাদের উপর হামলা চালায়। অতিষ্ট হয়ে কালুর নির্যতনের শিকার ওই এলাকার বহু নারী পুরুষ নেছারাবাদ ইউএনও আবু সাঈদের কাছে কালুর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। পরে এ বিষয়টি নিয়ে অনলাইন নিউজ পোর্টাল সবুজ বাংলা ও দৈনিক ভোরের দর্পন পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পরে কালু আরও ক্ষিপ্ত হয়ে বুধবার দিবাগত রাতে চাঁন মিয়ার ঘরে বাইরে থেকে তালা দিয়ে ঘরে ভাংচুর চালায় এবং এক পর্যায়ে ঘরে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়ার চেষ্টা চালায় । এ সময় এলাকাবাসী তাকে আটক করে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশের কাছে নিয়ে আসে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই জাকির হোসেন বলেন বৃহস্পতিবার রাতে চাঁন মিয়ার ছেলে লিটন বাদী হয়ে নেছারাবাদ থানায় কালুর বিরুদ্ধে বশতঘরে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। সেই মামলায় শুক্রবার সকালে কালুকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.