হায়দরাবাদকে হারিয়ে ফাইনালে চেন্নাই

0
(0)

মিতু গাইন স্টাফ রিপোর্টার//
দুই বছর নিষিদ্ধ থাকার পর আইপিএলে ফিরেই বাজিমাত চেন্নাই সুপার কিংসের। টুর্নামেন্টের অন্যতম শক্তিশালী দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছে গেল মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। প্রথম কোয়ালিফায়ারে সাকিব আল হাসানদের তারা হারিয়েছে ২ উইকেটের ব্যবধানে।
মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড় স্টেডিয়ামকে বলা হয় রান প্রসবিনী। কিন্তু আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে রান উঠল না মোটেও। প্রথম ব্যাট করতে নামা দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ১৩৯ রান তুলতে সক্ষম হলো। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান ফ্যাফ ডু প্লেসির অসাধারণ ব্যাটিংয়েই ৫ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় চেন্নাই। জয়ের জন্য ১৪০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে এক সময় পরাজয়ের শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল চেন্নাই। শেন ওয়াটসন ফিরে যান কোন রান না করেই। সুরেশ রায়না ২২ রান করে বিদায় নিলে বিপদে পড়ে যায় চেন্নাই। সেই বিপদকে আরও বাড়িয়ে তোলেন আম্বাতি রাইডু (০), মহেন্দ্র সিং ধোনি (৯), ডোয়াইন ব্র্যাভো (৭) এবং রবীন্দ্র জাদেজার (৩)। যদিও একপ্রান্ত আঁকড়ে ধরে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন ফ্যাফ ডু প্লেসি। দীপক চাহার ১০ রান করে ডু প্লেসিকে কিছুটা সঙ্গ দেন। এরপর হরভজন সিংও আউট হয়ে যান ২ রান করে। সর্বশেষ শার্দুল ঠাকুর প্রতিরোধ গড়ে দাঁড়ান। ৫ বলে তিনি খেলেন ১৫ রানের ইনিংস।
অন্যদিকে ফ্যাফ ডু প্লেসি ৪২ বলে অপরাজিত থাকেন ৬৭ রানে। ৫টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৪টি ছক্কার মার মারেন তিনি। সন্দ্বীপ শর্মা, সিদ্ধার্থ কাউল এবং রশিদ খান নেন ২টি করে উইকেট। ১ উইকেট নেন ভুবনেশ্বর কুমার। সাকিব আল হাসান ২ ওভার বল করে ২০ রান দিলেও কোন উইকেট পাননি। এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৯ রান করে হায়দরাবাদ। সর্বোচ্চ ৪৩ রান করে অপরাজিত থাকেন ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। ২৪ রান করে সংগ্রহ করেন কেন উইলিয়ামসন, ইউসুফ পাঠান।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.