গৌরনদীতে কলেজ ছাত্রী অপহরনের অভিযোগে থানায় মামলা

0
(0)

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি//
জুলিয়া আক্তার (১৬) নামের এক কলেজ ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে ৪ জনকে আসামী করে মঙ্গলবার রাতে বরিশালের গৌরনদী মডেল থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপহৃতা কলেজ ছাত্রীর বাবা প্রভাষক মোঃ আক্তারুজ্জামান বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন।
মামলার এজাহারে উল্লেখিত অভিযোগ ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, বরিশালের গৌরনদী উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চল সরিকল ইউনিয়নের মহিষা গ্রামের বাসিন্ধা ও পার্শ্ববর্তি বাবুগঞ্জ উপজেলার আগরপুর ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মোঃ আক্তারুজ্জামানের মেয়ে ওই কলেজেরই একাদশ শ্রেনীর ছাত্রী জুলিয়া আক্তার (১৬) গত ১১ মে সকাল ৯টার দিকে বাড়ি থেকে কলেজের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যায়। এরপর সে আর বাড়িতে ফেরেনি।
কলেজ ছাত্রীর বাবা মামলার এজাহারে অভিযোগ করেন, তারা খোজ নিয়ে জানতে পারেন ওইদিন কলেজে যাওয়ার পথে একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র ও পার্শ্ববর্তি উজিরপুর উপজেলার ঘন্টেশ্বর গ্রামের এস্কান্দার আলী মোল্লার ছেলে মেহেদী হাসান সাগর ও তার সহযোগীরা জুলিয়াকে জোর পূর্বক অপহরণ করে নিয়ে গেছে। স্থানীয়দের সহয়তায় তিনি তার মেয়েকে উদ্ধারের জন্য নানা রকম প্রচেষ্টা চালান। এতে ব্যার্থ হয়ে মঙ্গলবার রাতে তিনি নিজে বাদী হয়ে অপহরণকারী মেহেদী হাসান সোহাগ, তার বাবা, বোন ও ভগ্নিপতিসহ ৪ জনকে আসামী করে গৌরনদী মডেল থানায় ওই অপহরণ মামলাটি দায়ের করেন।
মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মুনিরুল ইসলাম মুনির জানান, ঘটনাটি প্রেম ঘটিত। তবে ভিকটীমের বয়স কম হওয়ায় এটিকে ফুসলিয়ে অপহরণ বলা যায়। ভিকটিমকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.