বিদায় নিলেন কিংবদন্তি আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা

0
(0)

সবুজ বাংলা ডেস্ক//
শেষ হলো স্প্যানিশ লিগের বর্ণাঢ্য এক অধ্যায়ের। সুপারনোভায় ধ্বংস হওয়ার পথেই নক্ষত্ররা যেভাবে দ্যুতি ছড়ায়, ক্যাম্প ন্যুতে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার বিদায় মুহূর্তটা ঠিক তেমনই উজ্জ্বল হয়ে রইল। ফুটবলবিশ্ব দেখল তারা খসার চমক। মাত্র কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে বিশ্ব ফুটবল একে একে বহু তারকাকেই তাদের দীর্ঘদিনের ক্লাব ছেড়ে যাচ্ছেন। সেই তালিকা দীর্ঘায়িত হলো ওয়েঙ্গার থেকে বুফন-তোরেস হয়ে ইনিয়েস্তার বার্সা ত্যাগে।
ওয়েঙ্গার হোক, অথবা বুফন, ক্যাম্প ন্যুর চিত্রনাট্যটা ছিল একই রকম। বিদায় সংবর্ধনায় ওয়েঙ্গারকে যেমন আকুণ্ঠ ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছে আর্সনাল সমর্থকরা, ইনিয়েস্তাও পেলেন একই রকমের বিদায়ী মঞ্চ। আবার ক্লাবকে চ্যাম্পিয়ন করিয়ে বুফনের জুভেন্তাস ছেড়ে যাওয়ার সঙ্গে ইনিয়েস্তার বার্সেলোনা ছাড়ার প্রেক্ষাপটটাও অবিকল এক।
আগেই লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়া জুভেন্তাসকে চোখের জলে বিদায় জানিয়েছিলেন বুফন। শেষ বেলায় ইনিয়েস্তারও চোখের জল বাধ মানেনি। তার সঙ্গে কেঁদেছে গ্যালারি ভর্তি দর্শকরা। লা লিগার খেতাব ইতিমধ্যেই ঝুলিতে পোরা বার্সেলোনা প্রিয় তারকাকে বিদায় জানাতে গিয়ে চোখের জলে ভিজেছে সবাই। লিগের ফয়সলা হয়ে গিয়েছে বহু আগেই। লা লিগার সমাপ্তি সূচক ম্যাচটা বার্সা এবং স্প্যানিশ লিগে ইনিয়েস্তার বিদায়ী ম্যাচ হিসাবেই স্মরণীয় হয়ে থাকবে চিরকাল।
রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে বার্সেলোনাকে শেষবার নেতৃত্ব দিতে নামা ইনিয়েস্তা ৮২ মিনিটে যখন মাঠ ছাড়েন, স্তব্ধ হয়ে যায় পুরো স্টেডিয়াম। থমকে যায় ম্যাচের গতি। সতীর্থরা ছাড়াও একে একে প্রতিপক্ষ ফুটবলার এবং রেফারিও জড়িয়ে ধরে শেষবারের মাতো ইনিয়েস্তার ক্যাম্প ন্যু ছাড়ার মুহূর্তটাকে আবেগঘন করে তোলেন। ডাগ-আউটে বসে ছলছল চোখে ম্যাচের বাকি সময়টা কাটিয়ে দেন তিনি।
৫৭ মিনিটে কুতিনহোর একমাত্র গোলে ইনিয়েস্তার বিদায়ী ম্যাচকে জয় দিয়ে স্মরণীয় করে রাখে বার্সা। ম্যাচ শেষ হওয়ার পর মাঠ জুড়ে নেমে আসে শ্মশানের স্তব্ধতা। পরক্ষণেই নিয়ন আলোয় শুরু হয় বার্সেলোনায় ইনিয়েস্তার ক্যারিয়ার উদযাপণের বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠান। #MerciWenger ক্যাম্পেইনে গানার্সরা যেমন ওয়েঙ্গারকে ক্লাবের ইতিহাসে উজ্জ্বল করে রেখেছিল, ঠিক তেমনই #inifinit8iniesta ছিল ক্যাম্প ন্যুর মন্ত্র। ম্যাচের শুরুতে তো বটেই, শেষ বারের মতো স্টেডিয়াম ছেড়ে যাওয়ার আগে পর্যন্ত ‘ইনিয়েস্তা’ ‘ইনিয়েস্তা’ ধ্বনিতে মুখরিত ছিল ক্যাম্প ন্যু।
সতীর্থ ও সমর্থকদের ভালোবাসায় ভেসে ইনিয়েস্তা যখন মাইক্রোফোন হাতে তুলে নেন, আবেগে উচ্ছ্বাসে উদ্বেলিত ক্যাম্প ন্যুতে তখন আবারও পিন ড্রপ সাইলেন্স। কাঁপা কাঁপা গলায় ইনিয়েস্তা ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ৩১টি ট্রফি এনে দেওয়া ক্লাব, সতীর্থ ও সমর্থদের। পরক্ষণেই বলে ওঠেন, ‘আজকের দিনে আবেগ ধরে রাখা খুবই কঠিন। এখানে এসেছিলাম একজন বালক হিসাবে। ক্লাব ছাড়ছি পরিণত মানুষ হয়ে। বিদায় বার্সেলোনা।’

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.