আবদুল্লাহ আল নোমান//
ভিটামিন, মিনারেল, আমিষসহ নানা প্রয়োজনীয় উপদান থাকায় দুগ্ধজাত খাবারের মধ্যে টক দই অত্যন্ত পুষ্টিকর। বর্তমানে স্বাস্থ্য সচেতনদের মধ্যে খাবারটি বেশ জনপ্রিয়। স্বাস্থ্যগুণের পাশাপাশি রূপচর্চায় রয়েছে এর নানাবিধ ব্যবহার। ওজন কমানো, ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে, চুল ঝকমক করাতে টক দই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।
প্রতিবেদনে বলা হয়, টক দই ওজন কমাতে সাহায্য করে। শরীরের মেদ ঝরাতে এটি বেশ কার্যকরী। দইয়ের ব্যাকটেরিয়াগুলো দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এই ব্যাকটেরিয়া কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে।
সম্প্রতি ব্রিটেনে এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা প্রতিদিন অন্তত দুই কাপ করে টক দই খায়, তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। এটি কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতেও টক দইয়ের জুড়ি নেই। টক দই, বেসন ও মধু মিশিয়ে নিন ভালো করে। মুখসহ পুরো শরীরের ত্বকে ব্যবহার করুন। আধা ঘণ্টা পর ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের রং হবে আরো উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত। চুলের শুষ্কতা ও রুক্ষতা দূর করতে টক দই সাহায্য করে।
আধা কাপ টক দই ও এক টেবিল চামচ পরিমান অলিভ অয়েল একটি পুরো ডিমের সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এই অভ্যাস নিয়মিত করলে চুল ঝলমলে হবে এবং চুলের ঘনত্ব বাড়বে।