কমলগঞ্জে এক গৃহবধুকে এসিড নিক্ষেপ আটক-১

কমলগঞ্জ(মৌলভীবাজার)প্রতিনিধি//
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে এক গৃহবধুকে এসিড নিক্ষেপ করেছে দেবর ও এলাকার তার সহযোগিরা। শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের ভানুবিল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত গৃহবধুকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা তাকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে রেফার্ড করেন। এঘটনায় এ ঘটনায় দেবর ময়ুর মিয়াকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
জানা যায়, ভানুবিল গ্রামের হুছন মিয়ার স্ত্রী।রোকেয়া বেগম পাঁচ সন্তানের জননী (৪৩) কে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে ঘরের বাইরে বের হলে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে ময়ুর মিয়া (৪৫) ও তার সহযোগি মিলাদ মিয়া (২৭) এসিড নিক্ষেপ করে। এসিডে গৃহবধুর গলা, কপাল, হাত ও বুকের অনেকাংশ ঝলসে যায়। গৃহবধুর চিৎকারে ময়ুর মিয়া গংরা পালিয়ে যায়।
পরে বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় গৃহবধুকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসলে চিকিৎসকরা তাকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে রেফার্ড করেন।
ডা: সুব্রত রায় জানান, রোকেয়া বেগম চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মেডিক্যাল বোর্ডের পরীক্ষা নিরীক্ষার পর প্রকৃত ঘটনা বোঝা যাবে। গৃহবধুর স্বামী হুছন মিয়া জানান, জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব শক্রতার জের ধরে আমার ছোট ভাই ময়ুর মিয়া ও তার সহযোগি মিলাদ মিয়া এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আবদাল হোসেন ও স্থানীয় সদস্য কে, মনিন্দ্র সিংহ জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এসিড নিক্ষেপের এ ঘটনাটি ঘটেছে।
কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মোকতাদির হোসেন পিপিএম জানান, অভিযুক্ত ময়ুর আলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।