মঠবাড়িয়ায় সংঘর্ষে দুই পরিবারের আহত ৯

0
(0)

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধি ॥
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় পূর্ব শত্র“তার জের ধরে দুই পরিবারের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে মঠবাড়িয়ার হোগলপতি গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। একই পরিবারের ছয় জনের অবস্থায় অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মেডিকেল অফিসার ডা. আলী আহসান ওই রাতেই ৬ জনকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় ওই রাতেই থানা পুলিশ ওই এলাকার আবদুল খালেকের ছেলে নুর জামালকে আটক করে। আহতরা হলো একই পরিবারের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে হারুন ফরাজী (৫৫), হারুন ফরাজীর স্ত্রী হনুফা বেগম (৪৫) ছেলে মিরাজ (১২), ইলিয়াস (১৫) জয়নাল (২৩) তার স্ত্রী সুরাইয়া (১৮), অপর পক্ষের একই এলাকার আবদুল খালেকের ছেলে নুর আলম (৩৩) তার স্ত্রী হনুফা (২৫) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার হোগলপাতি গ্রামের হারুন ফরাজীর সাথে ওই এলাকার শাহাদাৎ এর সাথে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ১৫দিন পূর্বে মারামারি হয়। এ ঘটনায় হারুন ফরাজী বাদী হয়ে মঠবাড়িয়া থানা শাহাদাৎসহ পাঁচ জনকে আসামী করে মামলা করে। আসামীরা জামিনে এলে বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিপক্ষের ৮/৯ একটি দল জয়নাল বাড়িতে ঢোকার সময় তাকে মুখ বেঁধে পিটিয়ে ঘরের ভিতরে নিয়ে আসে ও ঘরে থাকা অন্যদের এলোপাতাড়ী দেশী অ¯্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এসময় হারুনের বিদেশে যাওয়ার জন্য মটরসাইকেল বিক্রি করা, নিজেদের ও ধারদেনা করা ঘরে রক্ষিত এক লাখ ঊনআশি হাজার টাকা নিয়ে যায়। ওই সময় হামলাকারীদের দুই জন আহত হয়। সাবেক ইউপি সদস্য মন্টু জানান, আমার কাছে রাখা মটরসাইকেল বিক্রির ত্রিশ হাজার টাকা গত কাল হারুন নিয়ে যায়। মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম ছরোয়ার জানান, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.