কমলগঞ্জে ওয়াজ মাহফিলে বাঁধা দেয়ার অভিযোগ

0
(0)

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি,জয়নাল আবেদীন//
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বাংলাদেশ মনিপুরী মুসলিম ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (বামডো) এর স্থানীয় নির্বাচনের জের ধরে আদমপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ তিলকপুর এলাকায় কতিপয় মহল কর্তৃকওয়াজ মাহফিলে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বাংলাদেশ মনিপুরী মুসলিম উলামা ঐক্য পরিষদের আয়োজনে গতকাল (১৬ মার্চ) শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় তেঁতইগাও রশীদ উদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন।
লিখিত বক্তব্যে খোবাইব আহমেদ জাহাঙ্গির অভিযোগ করে বলেন, ১৯ জানুয়ারী ২০১৮ইং শুক্রবার বামডো নির্বাচনে মণিপুরী মুসলিম সমাজের পক্ষ থেকে হাফেজ শফিকুর রহমানকে সমাজ কল্যাণ পদে প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করা হয়। তাঁর প্রার্থীতার কথা শুনে নূর মোহাম্মদ পিতু, আহমদ উদ্দিন, আপ্তাবুর রহমান, রমিজ উদ্দিন, আব্দুস সামাদ, আব্দুন নুর আমাদের মনোনীত প্রার্থীকে বিভিন্নভাবে বাঁধা প্রদান করে মানসিক চাপ, চাঁদা প্রদানের জন্য চাপ সৃষ্টি ও গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ ও নির্বাচন থেকে অব্যাহতি করার জন্য বল প্রয়োগ করে। এর পরও শফিকুর রহমান বিজয়ী হন।
এর জের ধরে হযরত মাওলানা আব্দুর রশিদ (রহঃ) এর ৩৩ তম ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিলকে পন্ড করার লক্ষ্যে মণিপুরী মুসিলম উলামা ঐক্য পরিষদ এর আহ্বায়ক জহিরুল হক ও সদস্য খোবাইব আহমদ জাহাঙ্গীর এর বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদের অপবাদসহ বিভিন্ন কর্তৃপক্ষের কাছে মিথ্যা অভিযোগ দাখিল করে। অথচ অভিযোগকারী নূর মোহাম্মদ পিতু সহ অন্যান্যরা বিভিন্ন ধরণের উচ্ছৃঙ্খল কর্মকান্ডে লিপ্ত রয়েছে। এর পূর্বে ৩২ বছর ধরে এখানে ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়ে। সংবাদ সম্মেলনে মাও: শফিকুর রহমান, ফয়েজ উদ্দীন, হাবিবুর রহমান, হারুনুর রশীদ, আব্দুস সালাম, আদমপুর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর মুন্না রানা সহ বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ মিথ্যা অভিযোগ ও ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমুলক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানান।
তবে অভিযোগ বিষয়ে নূর আহম্মদ পিতু বলেন, শফিকুর রহমান আমাদের সাথে চলাফেরা না করার জন্য গ্রামবাসীকে উদ্ধুদ্ধ করেন। এ বিষয়ে গ্রামবাসী ওয়াজ মাহফিলে হাঙ্গামার আশঙ্কায় অভিযোগ দিলেও ওয়াজ বন্ধের বিষয়ে কোন অভিযোগ দেয়া হয়নি।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.