গৌরনদীতে সহপাঠী স্কুল ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন

গৌরনদী প্রতিনিধি//
বরিশালের গৌরনদীতে পিন্টু খান (১৯) নামের এক বখটে স্কুল ছাত্রের হাতে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে তার সহপাঠী দশম শ্রেসীর এক স্কুল ছাত্রী (১৭)। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর মা’র দায়েরকৃত মামলার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ শুক্রবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে যৌন নির্যাতনকারী ওই বখাটে স্কুল ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী, পুলিশ ও মামলার অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার সরিকল ইউনিয়নের সাহাজিরা গ্রামের আব্দুল মান্নান খানের বথাটে ছেলে, পার্শ্ববর্তি বাবুগঞ্জ উপজেলার আগরপুর গ্রামের আলতাফ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্র পিন্টু খান (১৯) দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে তার সহপাঠী একই বিদ্যালয়ে দশম শ্রেনীর ছাত্রী (১৭)কে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে নানাভাবে উত্যাক্ত করে আসঠিল। স্কুল ছাত্রী (১৭) বখাটে ছাত্রের ওই প্রস্তাবে কোন প্রকার সাড়া দিচ্ছিলনা। এক পর্যায়ে গত (৭ ফেব্রুয়ারী) বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্কুলে যাওয়ার পথে বখাটে ছাত্র পিন্টু তার সহপাঠী ওই স্কুল ছাত্রীর পথ রোধ করে দাড়িয়ে তার সম্মতি আদায়ের চেষ্টা চালায়। এ সময় স্কুল ছাত্রী বখাটে ছাত্র পিন্টুর প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বখাটে স্কুল ছাত্র পিন্টু তার সহপাঠী ওই স্কুল ছাত্রী (১৭)কে জাপটে ধরে তার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থান সমুহে হাত দিয়ে আঘাত করে যৌন নির্যাতন চালায়। ঘটনার পর নির্যাতিতা ওই স্কুল ছাত্রী তার স্কুলে না গিয়ে কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে ফিরে নিজের অভিভাবকদেরকে ঘটনা জানায়। পরে স্কুল ছাত্রীর মা নাসিমা বেগম বাদি হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গৌরনদী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এরপর গৌরনদী মডেল থানার এসআই মোঃ সামচুউদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ওই রাতে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার সাহাজিরা গ্রাম থেকে সহপাঠীকে যৌন নির্যাতনকারী বখাটে স্কুল ছাত্র পিন্টু খানকে গ্রেফতার করে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মুনিরুল ইসলাম মুনির জানান, প্রেফতারকৃত বখাটেকে শনিবার দুপুরে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।