বিশ্বকাপ খেলা অনিশ্চিত নেইমারের

আবদুল্লাহ আল নোমান//
আগামী বিশ্বকাপে কি খেলতে পারবেন ব্রাজিলিয়ান নেইমার?প্রশ্নের উত্তর যেনো এখন ঘুরপাক খাচ্ছে নেইমার প্রেমীদের মাঝে। ক্রমশ ঘন হচ্ছে আশঙ্কার কালো মেঘ। রোববার ফরাসি লিগে মার্সেইয়ের বিরুদ্ধে পায়ে বেশ চোট পেয়েছিলেন নেইমার। সে কারণে বৃহস্পতিবার অস্ত্রোপচার করাতে ব্রাজিলে পৌঁছে গেলেন নেইমার। হুইল চেয়ারে বসিয়ে রিও দে জেনেইরো বিমানবন্দর থেকে বের করা হয় তাকে।
ওইদিন ম্যাচের পরে পিএসজি তারকা ম্যানেজার উনাই জানিয়েছিলেন, প্রাথমিক পরীক্ষায় জানা গেছে নেমারের চোট গুরুতর নয়। গোড়ালির লিগামেন্টে আঘাত লেগেছে। কিন্তু চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই নাটকীয় ভাবে বদলে যায় ছবিটা। লিগামেন্টে চোটের সঙ্গে পায়ের কনিষ্ঠ আঙুলের হাড় ভেঙেছে নেইমারের। অস্ত্রোপচার না করিয়ে সুস্থ হওয়া কঠিন। সেক্ষেত্রে অন্তত দু’মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে ব্রাজিলের এই তারকাকে। ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে ৬ মার্চ তার খেলার কোনো সম্ভাবনাই নেই।
ব্রাজিল জাতীয় দলের চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার জানিয়েছেন, নেমারের পায়ের পাঁচ নম্বর মেটাটারসাল ভেঙে গিয়েছে। শনিবার সকালে অস্ত্রোপচার হতে পারে। সুস্থ হয়ে কবে মাঠে ফিরবে তা এখনই নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভব নয়। তবে দুই থেকে আড়াই মাস লাগতে পারে।
তিনি আরো বলেন, নেমার খুবই হতাশ। কিন্তু অস্ত্রোপচার করা ছাড়া উপায় নেই। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে দ্রুত নেমারকে মাঠে ফিরিয়ে আনা।
ব্রাজিল সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, রদ্রিগোকে নিয়ে বুধবার রাতেই প্যারিস ছেড়ে ব্রাজিলের বেলো হরাইজন্তে উড়ে যান নেমারের বাবা। বেলো সেখানেই মাতেই দেই হাসপাতালে অস্ত্রোপচার হওয়ার কথা তার।
এর আগে নেইমারের বাবা বলেন, অস্ত্রোপচারের পরে অন্তত ৬ সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে থাকবে নেইমার।