ইন্দুরকানীতে নিখোজের ৬ দিন পর স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

0
(0)

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ
পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে নিখোঁজ হওয়ার ৬ দিন পর নদী থেকে বেহেস্তি আক্তার নামে ৩য় শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুরে সন্ন্যাসী খেয়াঘাট সংলগ্ন পানগুছি নদী থেকে বেহেস্তির লাশ উদ্ধার করা হয়। ঐ স্কুল ছাত্রী ইন্দুরকানীর কালাইয়া গ্রামের মোঃ নজরুল ইসলামের মেয়ে এবং কালাইয়া বোর্ড সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকালে সন্নাসী খেয়াঘাট এলাকায় স্থানীয় জনতা পানগুছি নদীতে একটি মরদেহ ভাসতে দেখে নিকটস্থ সন্ন্যাসী পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দিলে পুলিশ ঐ মরদেহটি উদ্ধার করে। খবর পেয়ে বেহেস্তির পিতা নজরুল ইসলাম দুপুরে ইন্দুরকানী থানায় গিয়ে মেয়ের লাশ সনাক্ত করেন। ঐ স্কুল ছাত্রীর মা রানী বেগম জানান, প্রতিদিনের মত বেহেস্তি আক্তার গত মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে স্কুলে গিয়ে উপজেলায় আন্তঃ স্কুল ত্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠানে যায়। এরপর থেকে বেহেস্তি নিখোঁজ হয়। ঐদিন দুপুরে স্কুল ছুটির পর বেহেস্তি বাড়িতে ফিরে না আসায় তাকে খুঁজতে বের হয় স্বজনরা। আতœীয় স্বজন এবং পরিচিত জনদের কাছে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও বেহেস্তির কোন সন্ধান পায়নি তারা। এ ঘটনায় নিখোঁজের বিষয়ে মেয়েটির মা রানী বেগম বাদি হয়ে পরের দিন বুধবার ইন্দুরকানী থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করেন। ইন্দুরকানী থানার ওসি নাসির উদ্দিন জানান, ইন্দুরকানী থানায় গত বুধবার মেয়েটির নিখোঁজের বিষয়ে জিডি করেন তার মা। রবিবার পানগুছি নদী থেকে ঐ মেয়েটির ভাসমান লাশ উদ্ধার করে সন্ন্যাসী পুলিশ ফাঁড়ি। মোড়লগঞ্জ থানার ওসি মোঃ রাশেদুল আলম বলেন, রবিবার পানগুছি নদী থেকে ঐ মেয়েটির ভাসমান লাশ উদ্ধার করে সন্ন্যাসী পুলিশ ফাঁড়ি। এরপর তার স্বজনরা লাশটি সনাক্ত করে। দুপুরে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.