পিরোজপুরবাসীর উন্নয়নের জন্য আমি আপনাদের কাছে এসেছি শেখ এ্যানি রহমান

0
(0)

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধি
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুরের -১ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রধানমন্ত্রীর চাচী ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি সাবেক এমপি প্রয়াত এ্যাডভোকেট এনায়েত হোসেন খানের কন্যা শেখ এ্যানি রহমান পিরোজপুর -১ আসনে ব্যাপক গনসংযোগ করেছেন। গনসংযোগকালে এ্যানির স্বামি বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আপন চাচাত ভাই শেখ হাফিজুর রহমান টোকন ও তাদের ছেলে খালেদ সহ পরিবারের সদস্যরা তার সাথে ছিলেন। রোববার সন্ধ্যায় এ্যানিকে বহনকারী প্রায় দেড় শতাধীক গাড়ির বহর স্বরূপকাঠিতে পৌছুলে তাকে দেখতে শত শত জনতা রাস্তায় ভীড় জমায়। স্বরূপকাঠিতে এসে প্রথমে শেখ হাফিজুর রহমান টোকন ছারছীনা পীর মাও. শাহ মো. নেছার উদ্দিনের মাজার জিয়ারত করেন। পরে এ্যানি উপজেলা আওয়ামীলীগের কর্যালয়ে গেলে সেখানে তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। সেখানে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, বঙ্গবন্ধুর চাচাত ভাই শেখ হাফিজুর রহমান টোকন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক এস এম ফুয়াদ, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা প্রভাষক আব্দুস সালাম সিকদার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হক, আলফাজ উদ্দিন, আওয়ামীলীগ নেতা আতিকুল্লাহ, মো. খোকন, কাউন্সিলর মো. নুরুল ইসলাম ও উপজেলা শ্রমিকলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মো. আলী আজিম বাচ্চু প্রমুখ। সভাশেষে জগৎপট্টি ও জগন্নাথকাঠি বন্দরে গনসংযোগ করেন শেখ এ্যানি। রাতে সরকারি স্বরূপকাঠি কলেজর শহীদ মিনারে উপজেলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যাক্ষ মো. আলফাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন শেখ এ্যানি, উপজেলা শ্রমিকলীগ নেতা আহসানুল হক আশা ও আওয়ামীলীগ নেতা নাসির উদ্দিন প্রমুখ। সভাশেষে ইন্দুরহাট মিয়ারহাট বন্দরে নেতাকর্মিদের নিয়ে গনসংযোগ করেন শেখ এ্যানি। এর পূর্বে গত শুক্রবার বিকেলে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া থেকে জাতির জনক মেখ মজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত করে সেখান থেকে গাড়ির বহর নিয়ে পিরোজপুর শহরে আসেন শেখ এ্যানি। ওই দিন পিরোজপুরের কদমতলা ইউনিয়নে এক পথসভায় এ্যানি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার প্রার্থী হওয়ার ইঙ্গিত দেন। এসময় তিনি বলেন আমি প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলে তার সমর্থন নিয়ে আপনাদের নিয়ে আপনাদের সেবা দিতে এসেছি। আমার বাবা এখানকার এমপি ছিলেন আমি আমার বাবার অসমাপ্ত কাজগুলো সম্পাদন করে সোনার পিরোজপুরে রুপান্তরিত করতে চাই। ইতিমধ্যে এ্যানির ছবি সংবলিত ব্যানার ও ফেষ্টুনে পিরোজপুরের বিভিন্ন উপজেলা ছেয়ে গেছে এবং তার পক্ষ থেকে পিরোজপুর, নাজিরপুর ও স্বরূপকাঠির প্রতিটি ইউনিয়নে অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.