কমলগঞ্জে ভারতের প্রখ্যাত নৃত্যশিল্পী পদ্মশ্রী কলাবতীকে সংবর্ধনা

0
(0)

জয়নাল আবেদীন,
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ভারতীয় উপমহাদেশের প্রখ্যাত মণিপুরী নৃত্যশিল্পী ও নৃত্যগুরু রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক পদ্মশ্রী শ্রীমতি কলাবতী দেবীকে বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরাম এর আয়োজনে এবং মণিপুরী সমাজকল্যাণ সমিতি, বাংলাদেশ মণিপুরী যুব কল্যাণ সমিতি, মণিপুরী সাংস্কৃতিক পরিষদ ও মণিপুরী থিয়েটার এর সহযোগিতায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। শুক্রবার রাত ৮টায় কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের ঘোড়ামারার দক্ষিণ মন্ডপে ভারতীয় প্রখ্যাত এই নৃত্যশিল্পীকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে মণিপুরী নারী পুরুষের সাথে নাচে গেয়ে আনন্দে মেতে উঠেন কলাবতী দেবী। বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের উপদেষ্টা শিক্ষাবিদ রসমোহন সিংহের সভাপতিত্বে ও পৌরি সম্পাদক সুশীল কুমার সিংহের পরিচালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপমহাদেশীয় সংস্কৃতি প্রসার কেন্দ্র সাধনার ধ্রুমেল প্রকল্পের আর্টিস্টিক পরিচালক লুবনা মরিয়ম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য বিশিষ্ট অভিনেত্রী ও নিদের্শক রোকেয়া রফিক বেবী, মণিপুরী সমাজকল্যাণ সমিতির সভাপতি প্রতাপ চন্দ্র সিংহ, মাধবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক রাজকান্ত সিংহ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সমরজিত সিংহ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, বাংলাদেশ মণিপুরী আদিবাসী ফোরামের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শিক্ষিকা বিলকিছ বেগম, মণিপুরী নৃত্যশিল্পী ও প্রশিক্ষক সুইটি দাস চৌধুরী প্রমুখ। সংবর্ধিত ভারতের নৃত্যশিল্পী অধ্যাপক পদ্মশ্রী শ্রীমতি কলাবতী দেবী বলেন, এ ধরণের একটি অনুষ্ঠান উপভোগ করে আমি নিজেই অভিভূত। তিনি মণিপুরী আয়োজক সহ সকলের প্রশংসা করে বলেন, আগামী মার্চ, এপ্রিল মাসে বাংলাদেশে এসে নৃত্যাংনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করবো। অতিথি আলোচকরা বলেন, সুস্থ্য-সুন্দর সমাজ বিকাশে সকল সম্প্রদায়কে স্ব স্ব কৃষ্টি, সংস্কৃতিকে লালন করতে হবে। এজন্য বর্তমান তরুন প্রজন্মসহ সকল শ্রেণির লোককে এগিয়ে আসতে হবে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.