গৌরনদীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আহত

0
(0)

গৌরনদী প্রতিনিধি
এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে শুক্রবার রাতে বরিশালের গৌরনদী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় ষ্টুডেন্ট কেবিনেটের ১নং সদস্য এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রলীগ নেতা জিহাদ মিয়া (১৭)’র ওপর পরিকল্পিত হামলা চালিয়ে তাকে পিটিয়ে ও ক্ষুরাঘাত করে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। গুরুতর আহত ওই ছাত্রলীগ নেতাকে মুমুর্ষ অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে বিদ্যালয়ের সাধারন শিক্ষার্থীরা শনিবার সকালে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। এতে মহাসড়কের উভয় দিকে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।
হামলায় আহত জিহাদ মিয়ার বাবা উপজেলার উত্তর পালরদী গ্রামের হাবিবুল্লাহ মিয়া জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষরা হত্যার উদ্দেশ্যে তার ছোট ছেলে জিহাদ মিয়া (১৭) এর ওপর হামলা চালিয়েছে। জিহাদ শুক্রবার রাতে প্রাইভেট পড়ে গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ড থেকে উপজেলার উত্তর বিজয়পুর গ্রামে তার মেয়ের বাসায় যাচ্ছিল। রাত ৯টার দিকে গৌরনদী টিএ্যান্ডটি অফিসের মোড়ে কাঁচা রাস্তার উপর পৌছলে আগে থেকেই সেখানে ওৎ পেতে থাকা সরকারি গৌরনদী কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি সুমন মাহমুদের ছোটভাই সাগর মোল্লা ও তার সহযোগী শাওন সরদার, তারেক ভূইয়ার নেতৃত্বে ১৪/১৫ জন সন্ত্রাসী মিলে এলাপাতারি পিটিয়ে ও ক্ষুরাঘাত করে জিহাদকে রক্তাক্ত যখম করে। তার ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে মুমুর্ষ অবস্থায় স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। গতকাল শনিবার বিকেল ৩টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আশঙ্কাজনক অবস্থায় জিহাদকে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল।
ঘটনার পর আহত জিহাদের বড়ভাই গৌরনদী পৌর ছাত্রলীগের প্রভাবশালী নেতা আতিক মিয়া বাদি হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে ওই রাতেই গৌরনদী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।
অপরদিকে হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা গতকাল শনিবার বেলা ১১টার দিকে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ সময় মহাসড়কের উভয় দিকে শতশত যানবাহন আটকা পড়ে দীর্ঘ যান জটের সৃষ্টি হয়। ফলে সাধারন যাত্রীরা চরম ভোগান্তির শিকার হয়।
খবর পেয়ে গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌছে হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের আশ্বাস দেন। এর ফলে প্রায় ৪৫ মিনিট ধরে মহাসসড়ক অবরোধ করে রাখা শিক্ষার্থীরা তাদের অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান, আহত জিহাদের বড়ভাই আতিক মিয়া বাদি হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের গ্রেফতারে জোর প্রচেষ্টা চলছে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.