ভারী বৃষ্টি কোণঠাসা শীত হুঙ্কার নিম্নচাপের

0
(0)

স্টাফ রিপোর্টার//

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া গভীর নিম্নচাপটি ওডিশা-অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলের কাছাকাছি চলে আসার ফলেই এই গুমোট, এই অস্বস্তিকর আবহাওয়া তৈরি হয়েছে— জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর। তাদের পূর্বাভাস, গভীর নিম্নচাপটি স্থলভূমির আরও কাছে এগিয়ে এলে ভারী বৃষ্টি হতে পারে ওডিশা ও গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। শনিবারেই সেটি স্থলভূমিতে ঢুকবে, মনে করছেন আবহবিদেরা। দিন দুয়েক আগেও সূর্যের তাপ গায়ে মেখে দাঁড়াতে ভাল লাগছিল। রাতে আর ভোরে গায়ে দিতে হচ্ছিল গরম জামা, মুড়ি দিতে হচ্ছিল লেপ-কম্বল। আর শুক্রবার সূর্য মুখ না-দেখানোয় বাইরে বেরোতেই চেপে ধরেছে ঠান্ডা! আবার রাতে তাপমাত্রা না-কমায় তীব্র হচ্ছে অস্বস্তি!! শীত জাঁকিয়ে বসার মধ্যবর্তী সময়টা ঘূর্ণিঝ়ড় বা গভীর নিম্নচাপ তৈরির পক্ষে আদর্শ। তাই এতে অস্বাভাবিক কিছু নেই। তবে অনেক পরিবেশবিজ্ঞানী মনে করিয়ে দিচ্ছেন, ২০১৩ সালে দু’মাসের পরপর চারটি অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় জন্ম নিয়েছিল বঙ্গোপসাগরে। ফি-বছরই দেখা যাচ্ছে, খাতায়-কলমে বর্ষা বিদায়ের পরেও নিম্নচাপের বৃষ্টি চলছেই। ঋতুচক্রের ইতিবৃত্তে বর্ষা ও শীতের মাঝখানে হেমন্ত নামে যে-ঋতুর কথা বলা আছে, তার অস্তিত্ব বিলুপ্তির পথে। ডিসেম্বরেও বৃষ্টি এসে ঠেলে ঠেলে পিছিয়ে দিচ্ছে শীতকে।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.