স্বরূপকাঠি লঞ্চঘাটে পল্টুন না থাকায় যাত্রী দূর্ভোগ চরমে

0
(0)

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধি ॥
পিরোজপুরের স্বরূপকাঠির প্রধান লঞ্চঘাটে পল্টুন না থাকায় যাত্রী দূর্ভোগ চরম আকার ধারন করেছে। সন্ধ্যা নদীর পূর্ব পাড়ে উপজেলা সদরে অবস্থিত ওই লঞ্চঘাটটি ২০১৪ সালে উদ্বোধন করা হয়। উদ্ভোধন কালে নতুন কোন পল্টুন (লঞ্চঘাট) না দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ছারছীনা ঘাটে ব্যবহৃত পুরোনো পল্টুনটি দিয়ে ঘাট উদ্বোধন করা হয় সেই থেকে ওই পুরোনো ভাংগাচোড়া ঘাটটিকে জোড়াতালি দিয়ে ব্যবহার করে আসছিল স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। গত প্রায় এক মাস সেটির তলা ফেটে গিয়ে ব্যবহারের সম্পূুর্ন অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে জনগুরুত্বপূর্ন ওই ঘাট দিয়ে ঢাকা, হুলারহাট, পিরোজপুর, ভান্ডারিয়া, বানারীপাড়া, বিশারকান্দি, বৈঠাকাটা, হারতা সহ বিভিন্ন রুটে প্রতিদিন ছোট বড় মিলিয়ে অন্তত ১৫ টি লঞ্চে করে প্রায় তিন সহস্রাধীক যাত্রী চলাচল করে। পল্টুন না থাকায় ঘাটের পাশ^বর্তী একটি চর দিয়ে চলছে লঞ্চে যাত্রী ওঠা নামার কাজ এতে করে যাত্রীরা নানা ধরনের দূুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। বিশেষ করে মহিলা ও বৃদ্ধ যাত্রীদের পড়তে হচ্ছে চরম ভোগান্তিতে। এ ব্যাপারে অগ্রদূত প্ল¬াস লঞ্চের ঘাট সুপার ভাইজার মো. আলী আজিম বাচ্চু ও টিপু লঞ্চের ঘাট সুপার ভাইজার মো. নুরুল ইসলাম জানান, প্রতিদিনই ঘাটে দু চারজন যাত্রী দূর্ঘটনার সম্মুখিন হচ্ছে। সামনে ছারছীনা দরবার শরিফের বার্ষিক মাহফিল এসময় দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে লঞ্চযোগে লক্ষ লক্ষ ধর্র্মপ্রান মুসল্লিরা আসবে এর পূর্বে নতুন পল্টুন স্থাপন করা অতি প্রয়োজনীয়। বিষয়টি নিয়ে ঘাট ইজারাদার মো. মাহমুদ কবিরের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, সন্ধ্যা নদীর পূুর্ব এবং পশ্চিম পাড়ের পল্টুন দুটিতে তিনি ব্যাক্তিগতভাবে প্রায় এক লক্ষ টাকা ব্যয়ে সংস্কার করে এতদিন ব্যবহার করে আসছিলেন। বর্তমানে সেটা সংস্কার বা ব্যবহারের সম্পুুর্ন অনুপযোগী। পল্টুনের জন্য বি আই ডব্লি¬¬উ টি এ বরাবরে বারবার আবেদন করার পরেও তারা নতুন পল্টুন দিবে দিবে বলেও এখন পর্যন্ত দিচ্ছে না।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.