আমদানি কমে যাওয়ায় পেঁয়াজের দাম বাড়তি

0
(0)

((বিশেষ প্রতিনিধি))
দিনাজপুরের হিলি বন্দর দিয়ে ভারত থেকে সবচেয়ে বেশি পেঁয়াজ আমদানি হয়। সাম্প্রতিক সময়ে দুর্গাপূজা ও আশুরাকে কেন্দ্র করে এ স্থলবন্দর দিয়ে ৭ দিন পেঁয়াজসহ সব ধরনের পণ্য আমদানি-রফতানি পুরোপুরি বন্ধ ছিল। এর জের ধরে চাহিদা অনুযায়ী পণ্যটি সরবরাহ বন্ধ থাকার ফলে স্থানীয় বাজারে ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। দুই সপ্তাহ ব্যবধানে পাইকারি পর্যায়ে অর্থাৎ ট্রাক সেল প্রতি কেজি পেঁয়াজ অতিরিক্ত ৮ থেকে ১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে এর মধ্যে ছুটি শেষে স্থলবন্দরের কার্যক্রম শুরু হওয়ার ফলে পণ্যটির আমদানি পর্যায়ক্রমে বাড়ছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে হিলি বন্দর দিয়ে দুর্গাপূজার বন্ধের আগে প্রতিদিন ২০ থেকে ২৫ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হতো। বর্তমানে পণ্যটির আমদানির পরিমাণ দৈনিক ১৫ থেকে ২০ ট্রাকে নেমে এসেছে। দুর্গাপূজা ও আশুরার ছুটি শেষে স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম শুরু হলেও, পেঁয়াজ আমদানি খুব একটি বাড়েনি। বর্তমানে প্রতিদিন ২১ থেকে ২৫ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। হিলি বন্দর দিয়ে ভারতের ইন্দোর, নাসির, রাজস্থান ও পাটনা থেকে পেঁয়াজ আমদানি হয়। ইন্দর থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৩৫ থেকে ৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অথচ এ পেঁয়াজ কিছুদিন আগেও বিক্রি হয়েছিল কেজিতে ২৫ থেকে ২৬ টাকায়। ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ প্রতি কেজি মানবেদে ৩৫ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
এদিকে ভারতে চলতি মাসে শেষের দিক থেকে শুরু হবে নতুন মৌসুমের পেঁয়াজ সরবরাহ। এর আগে মৌসুমের শেষে এসে দেশটির বাজারে পণ্যটির সরবরাহ কমেছে। ফলে ভারত থেকে দেশে পেঁয়াজ আমদানিও কমেছে। ভারতে বন্যার কারণে উৎপাদিত পেঁয়াজের মান কমেছে। ভারতের বাজারে পণ্যটি সরবরাহ সংকট ও মূল্য বৃদ্ধির কারণে পেঁয়াজ সরবরাহ সংকটের মধ্যে পড়ে যায়। পাশাপাশি দেশের বাজারে সংকটের কারণে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পায়। তবে চাহিদা ও সরবরাহে ভারসাম্য বজায় রেখে দাম নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকারি নজরদারি বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। এদিকে ইকোনোমিক টাইমস প্রতিবেদন অনুযায়ী মৌসুমের শেষ পর্যায়ে সরবরাহ সংকটের কারণে ভারতের বাজারেও পেঁয়াজের দাম বেড়ে যায়। এশিয়ায় পেঁয়াজ কেনাবেচায় সবচেয়ে বড় কেন্দ্র ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের লাসাইগাঁওয়ের এর পাইকারি বাজার। ভারতের অভ্যন্তরীণ বাজারেও পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে। পাশাপাশি দেশের বাইরেও আমদানিকারকদের মধ্যে চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পায়। নতুন মৌসুমের পেঁয়াজ বাজারে না আসা পর্যন্ত পণ্যটির দাম বাড়তি থাকবে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.