অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা সত্যেও গৌরনদীতে সরকারী খালে পাকা ভবন নির্মান

0
(0)

গৌরনদী প্রতিনিধিঃ
বরিশালের গৌরনদীর সাকোকাঠিতে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে খালের মধ্যে পূনরায় অবৈধভাবে পাকা ভবন নির্মান করছেন দিলীপ কুমার নামের প্রভাবশালী এক ব্যাক্তি। গত ৩ সপ্তাহ আগে অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলেছিল গৌরনদী ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এরপরেও থেমে নেই ওই ব্যাক্তির দখল প্রক্রিয়া। পূনরায় একইস্থানে তিনি ভবন নির্মান কাজ শুরু করেছেন। এনিয়ে এলাকাবাসীর মনে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে, দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন। আসলে ওই ব্যাক্তির খুটির জোর কোথায় ?
স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গত মার্চ মাসের প্রথম দিকে উপজেলার সাকোকাঠী মিশুক স্ট্যান্ড সংলগ্ন সরকারী খালের জমি দখল করে অবৈধ ভাবে পাকা ইমারাত তৈরীর কাজ শুরু করছিলেন সাকোকাঠী গ্রামের দিলীপ কুমার দাশ ওরফে দুখী রাম নামের প্রভাবশালী এক ব্যাক্তি। স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পারেন গৌরনদীর উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালেদা নাছরিন। তারই নির্দেশে গত ১৪ মার্চ গৌরনদী উপজেলা ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কানুনগো মোঃ মিজানুর রহমান, সরিকল ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশীলদার সহ অন্যান্য কর্মচারীরা ওই স্থানে গিয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেন। একই সাথে তাকে সরকারী খালের মধ্যে ভবন নির্মান না করার নির্দেশ প্রদান করেন ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। খবর নিয়ে জানাগেছে,সরকারী নির্দেশ অমান্য করে গত ৩দিন যাবত একইস্থানে পূনরায় পাকা ভবন তৈরীর কাজ শুরু করেছেন ওই ব্যাক্তি। এ ব্যাপারে অবৈধ দখলদার দিলীপ কুমারের সাথে তার মোবাইলে একাধিকবার কল করা হলেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।বিষয়টি নিয়ে গৌরনদীর নির্বাহী অফিসার খালেদা নাছরিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,বিষয়টি আমি জানতে পেরেছি। ২ দিন অফিস বন্ধ এসিল্যান্ড সহ কর্মচারীরা কর্মস্থলে ছিলনা বিধায় উচ্ছেদ অভিযান চালানো সম্ভব হয়নি। আজ (রবিবার) অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য ব্যবস্থা নেবেন বলে তিনি জানান।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.